Saturday, December 31, 2011

Pot Marigold(ক্যালেন্ডুলা ফুল) - Calendula officinalis

Common Name : Pot Marigold.
Bengali Name : ক্যালেন্ডুলা ফুল
Botanical Name : Calendula officinalis
Family : Asteraceae(Aster family)





আজকের ফুলের নাম ক্যালান্ডুলা ফুল... ইউরোপ মহাদেশের এই ফুল এখন আমাদের দেশের অনেক বাগানেই বা বাড়ির সামনের ফাকা জায়গায় শোভা পায়... বর্ষজীবী এই হলুদ, কমলা ক্যালান্ডুলা ফুলের কিছু ছবি দিয়ে আজকের লেখা লেখলাম...



Common name of the flower is Pot Marigold(aka Calandulas). Botanical name of the flower is Calendula officinalis. It pertains to the plant family Asteraceae(Aster family). Calandulas is native to Southern European zone.



This herbaceous annual plant can grow around a ft in height. Grows well in almost every conditions. Cannot sustain well in winter(frost). Under the proper sunlight it produces lovely bright yellow, orange flower.



Calandula has oblong leafs hairy at both sides. Flowers are like others from the Aster family. Petals of the flower is arranged in two layers. Each of the petals are having toothed at the pinnacle. Flowers are smelly.



This flower is using to add color to food, salads etc. Previously the color was using for dying. Some people used to cultivate this flower for herbal medicine purpose.



Photos of this article were taken from Kolakopa(কলাকোপা), during my tour at December 2011.

Tea Flower(চা ফুল) - Camellia sinensis



আমি চা খাই না... কিন্তু চা বাগানে ঘুরতে যেতে আমার আপত্তি নাই... অনেকবার গেছি চা বাগানে, কখনও চা গাছের ফুল দেখা হয় নাই... অনেক দিন আগে একবার পেপারে পড়েছিলাম চা গাছের ফুল নাকি সচরাচর দেখা যায় না... তাই অনেক শখ ছিল এই গাছের ফুল দেখার... এইবার লালাখাল দেখতে যেয়ে ঐখানের চা বাগানে অনেক পুরানো কিছু চা গাছের দেখা পেয়ে গেলাম... আর প্রায় প্রতিটি গাছেই ফুল এসেছে... এমন অবস্থা যে কোনটা রেখে কোনটার ফটো উঠাই... ছোট সাদা ফুলটা দেখতে অনেকটা চালতা গাছের ফুলের ছোট ভাই বলে মনে হয়...



People are using Tea as drink from several hundred years back. The leaf of the plant is using to produce tea is having botanical name Camellia sinensis. This tea plant pertains to the plant family Theaceae.



Tea is an evergreen plant and grows at tropical condition. This shrubby plant can grow several meters in height, but forcefully trimmed under waist height for ease of collecting leafs during cultivation. The green leafs from the plant used to harvest periodically.



The small tea flower is white in color having five petals(can have up to 7/8). Center of the lovely flower has a stigma surrounded by lot of yellow stamens. Tea leafs are having lovely foliage and alternately placed. Flower is used to bloom at the opposite side of the face of the leaf, means bottom of the leaf.



Tea plant used to propagate using the cutting or from it's seeds. It takes around 4-12 years for a tea plant to bear seeds. Also the new plant can be harvested after 3 years of its plantation.



Bangladesh has lot of tea gardens at the Sylhet(সিলেট) and Chittagong(চট্টগ্রাম) hilly areas which are producing very high quality of teas throughout the years. Also lot of people used to visit those gardens during winter for their vacation. Recently at the northern part of our country, at district Panchagarh(পঞ্চগড়) few plain land tea gardens are started.

Picturesque tea garden


Photos of this article were taken from Lalakhal(লালাখাল) tea factory of Sylhet(সিলেট), during my tour at December 2011.

Brinjal Flower(বেগুন ফুল): Solanum melongena



আমাদের আজকের ফুল, বেগুন ফুল... সাধারণত সবজি হিসেবে কমবেশি সবাই আমরা বেগুন কে চিনি... আলুর পরে সব থেকে বেশী ব্যবহৃত সবজি হলো বেগুন... রংধনুর যে সাত রং আছে, তার মধ্যে একটা রং হলো বেগুনি... এই বেগুনি রং টা এসেছে বেগুন থেকে... বেগুনের রঙের মতন বলেই এই রংকে বেগুনি বলে... আমাদের বাংলাদেশে দুই রঙের বেগুন হয়, সাদা(সবুজ) আর কালো(বেগুনি)... এই দুই রঙের মধ্যেই আবার দুই রকম আকারের হয়, লম্বা আর গোল... এছাড়া আরেকটা বেগুন হয় একদম ছোট ছোট, সেইটাকে বলে জলপাই বেগুন, যা একটু কম দেখতে পাওয়া যায়... বেগুনকে চিনলেও এমন অনেককেই পাব যারা বেগুনের ফুল কখনো দেখেই নাই... বেগুনের ফুল হয় ছোট হালকা বেগুনি রঙের... বড় বড় পাতাওয়ালা গাছে ছোট ছোট কাটা থাকে...



Our today's flower is brinjal flower. This pertains to the plant family Solanaceae. Botanical name of the plant is Solanum melongena. In Bangladesh, this is known as Begun(বেগুন). The common name of the plant is eggplant, brinjal, guinea squash, etc. This plant is native to the Indian territory.

Brinjal fruit


Plant grows around one meter in height at maximum having coarsely lobed leafs. The plant has thorns and stem are spiny. Flower is small, light violet in color having lobed corolla, stamens are yellow. Fruits are fleshy and used as vegetable.



Since the vegetable is highly palatable, it is being cultivated on a large scale in our country. Mostly people from dry land used to cultivate brinjal(almost no irrigation is required). It is a perennial plant, but using as annual when cultivated. Regardless the season, you'll find more or less brinjal in local market.



Photos of this article were taken from Nawabganj of Dhaka(নবাবগঞ্জ, ঢাকা) during my tour at December 2011.

Friday, December 30, 2011

Bagan Bilash(বাগান বিলাস ফুল) - Bougainvillea glabra



আমাদের খুবই পরিচিত একটা ফুল হলো বাগান বিলাস. আমদের দেশের মোটামুটি প্রায় সব জায়গায় এই গাছ চোখে পরে... বিশেষ করে বাড়ির সামনের গেট অথবা পার্কে... বিভিন্ন রঙের হয়ে থাকে এই গাছের ফুল... লাল, কমলা, হলুদ, সাদা, গোলাপী, আরো কত রং...! দক্ষিন আমেরিকার এই ফুলের গাছটিকে এখন আর বিদেশী গাছ বলে মনেই হওয়া... আমরা এই ফুলকে বাগান বিলাস ফুল, কাগজ ফুল, কাগজি ফুল প্রভিতি নামে চিনি...



Bougainvillea is known as Bagan Bilash(বাগান বিলাস), Kagoj Ful(কাগজ ফুল), Kagji Ful(কাগজি ফুল), etc in Bangladesh. This flowering plant is native to South America. It pertains to the plant family Nyctaginaceae. Botanical name of the flower is Bougainvillea glabra.



This is a woody vine like plant. Using its spike, it can easily entangle other plants or fence. Plant can grows 1-12 meter in height. Leafs are ovate shaped. The color of the flower is red, yellow, pink, purple, white, orange, etc. The flower has three or six bracts having any of the mentioned colors. Doesn't have any smell.



This plant is using as ornamental flower for its bright colorful bracts. People used to say this plant as Paper Flower because of the paper like bracts. It produces lot of flower throughout the years. Sometimes you'll find the count of the flower is greater compare to leafs count.



Photos of this article were taken from Sylhet, during my tour at December 2011.

Thursday, December 29, 2011

Mymensingh: Brahmaputra River(ব্রহ্মপুত্র নদ) & Bridge


Friday, 16 December 2011



ব্রহ্মপুত্র নদ আমাদের দেশে এসে দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে গেছে জামালপুর জেলায়... একটা যমুনা নদী আর অন্যটা ব্রহ্মপুত্র নদ নাম নিয়ে... একসময় যমুনার আকার ছিল ছোট, আর ব্রহ্মপুত্র এর আকার ছিল বড়... কিন্তু কালের প্রত্যাবর্তনে এখন উল্টাটা হয়ে গেছে... ব্রহ্মপুত্র এর আকার ছোট হতে হতে এমন অবস্থা যে একে এখন যমুনা নদীর শাখা বলে মনে হয়... একে এখন পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদ নামেই ডাকা হয়... এই পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদ জামালপুর দিয়ে মমন্সিংহ হয়ে পরবর্তীতে মেঘনা নদীর সাথে মিলে গেছে... আমরা যখন বিরিশিরি যাবার পথে ব্রহ্মপুত্র নদের উপরের ব্রিজটা ঘুরে ঘুরে দেখছিলাম, তখন আবহাওয়া অনেক বাজে ছিল... নদের উপরে ছিল প্রচন্ড কুয়াশা... তাই ইচ্ছা থাকা সত্যেও নদের কোনো ভালো ছবি আমি তুলতে পারি নাই...



The massive river Brahmaputra(ব্রহ্মপুত্র) entered through the northern part of Bangladesh. After entering, it diverse into two parts. One is eastern and other is western part. Eastern part is known as Old Brahammaputra Nod(পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদ) and other one is Jamuna river(যমুনা নদী).



Once upon a time the Eastern one was the larger one, but accruing the time, this one shrinking and other one got heavy. After coursing several districts like Jamalpur(জামালপুর), Mymensingh(ময়মনসিংহ), etc the river just merged with the Meghna River(মেঘনা নদী) and fall into the Bay of Bengal.



There are lot of bridges over this river at several districts. Near the Mymensingh(ময়মনসিংহ) town, you'll find two bridges. One is for the road transports, and other one is only for railway service. From one bridge other one can be seen. I have crossed the bridge by walking under the chilling weather.



The weather was so damp that I wasn't able to pick any good quality photo of the river. GPS coordinate of the bridge over the river is (24°44'56.03"N, 90°25'26.83"E).

Sylhet: Dholai Nodi(সিলেটের ধলাই নদী)


Friday, 23 December 2011



বাংলাদেশে ধলাই নামে অনেকগুলা নদী আছে... আমার জানামতেই ধলাই নদী আছে মৌলভীবাজার আর নেত্রকোনা জেলায়... খোজ নিলে আরো অনেক জেলায় পাওয়া যাবে... আজকের লেখায় সিলেট জেলার কোম্পানীগঞ্জ থানার ধলাই নদীর কথা বলা হচ্ছে... ভারতের চেরাপুঞ্জি পাহাড় থেকে সৃষ্টি হয়ে ভোলাগঞ্জ দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে নদীটি... পরবর্তীতে অন্যান্য নদীর সাথে মিশে শেষ পর্যন্ত সুরমা নদীতে যেয়ে মিলেছে... আমি ভোলাগঞ্জ ঘুরতে যেয়ে এই নদীর কিছু ছবি তুলেছি... এই লেখার সাথে দিয়ে দিলাম...



Current season of the Bangladesh is winter. During this season, the river Dholai(ধলাই নদী) become so serene that you'll find hardly any tide or flow there. Too much shallow river. Anyone can cross the river by walking. People used say the river as Mora Nodi(মরা নদী)



This river is originated from the Cherapunji Hills(চেরাপুঞ্জি পাহাড়) of India and entered the country through the Bholagonj of Sylhet(সিলেটের ভোলাগঞ্জ). After flowing very poorly in our country, it joined with the river Shurma(সুরমা নদী).



Dhalai nodi(ধলাই নদী) is famous for the stones. People used to collect the stone from the river. I have walked at the bank of the river from Bholagonj(ভোলাগঞ্জ ) to 'dosh number point'(দশ নাম্বার পয়েন্ট). The river bank seems too high for me. Possibly during rainy season, the river may have lot of water with heavy current.



The GPS coordinate at where the river entered into Bangladesh is (25° 9'10.02"N, 91°45'18.75"E)

Netrakona: Kongsho Nodi(কংস নদী)


Saturday, 17 December 2011



আজকে নেত্রকোনার কংস নদীর কিছু ছবি দিচ্ছি... বিরিশিরি যাবার এবং আসবার পথে কংস নদীর উপরের ব্রিজটা পার হবার সময় চলন্ত গাড়ি থেকেই ছবিগুলা তুলেছিলাম... এটা ছিল জারিয়া ঝান্জাইল বাজারের কাছে... নদীটা ভারতের গারো পাহাড় থেকে সৃষ্ঠি হয়ে পরবর্তীতে সোমেশ্বরী নদীর সাথে এক হয়ে কংস নাম ধরে সামনের দিকে বয়ে চলেছে... বর্ষায় অনেক ভয়ংকর এই নদী, আর অন্যান্য সময়েও কম বেশি পানি থাকে...



Kangsha(কংস), a river from Bangladesh(বাংলাদেশ). It has several names, Kangsha(কংস), Kangshai(কংসাই), Kangshabati(কংসবতী), etc. This flows through Mymensingh(ময়মনসিংহ) and Netrakona(নেত্রকোনা). All of the photos of this river were taken from Netrakona(নেত্রকোনা).



The river is originated from the Garo Hills(গারো পাহাড়) of India and flows as Kongsho(কংস), and later joined with the Shomeswari(সোমেশ্বরী) river at Jaria-Jhanjail(জারিয়া-ঝান্জাইল). The river kept the name Kangsha(কংস) after joining together.



Near the bridge you'll find two bazaar at either side. One is Jaria(জারিয়া), and other one is Jhanjail(ঝান্জাইল). People used to call this place as Jaria-Jhanjail(জারিয়া-ঝান্জাইল) together.



During it's course the river become to narrow and before demising it has joined with another great river of Bangladesh, Shurma(সুরমা), at Sunamganj(সুনামগঞ্জ).



All the photos of this article were taken from the car while crossing the Kongsho bridge at Jaria-Jhanjail. GPS coordinate of the bridge at (25° 0'46.59"N, 90°38'50.00"E)

Wednesday, December 28, 2011

Birisiri: China Matir pahar(চিনা মাটির পাহাড়)


Saturday, 17 December 2011




বিরিশিরিতে চিনা মাটির পাহাড়টা নীল পুকুরের পাশেই... পুকুর দেখার আগে বা পরে যে কেও এই পাহাড় দেখে নিতে পারে... রহস্যময় এই পাহাড়ের মাটিতে প্রায় সব ধরনের রং ই পাওয়া যাবে... এখানে কিছু ছবি দিয়ে দেয়া হলো... দেখে পোড়া মাটির মতন মনে হতে পারে...



After enjoying the blue lake of birisiri, you can explore the china clay hill around the lake area. There are several hillocks around the lake. You can climb few of those to get the feelings of hiking.



The reason behind exploring the clay hill is it's colorful soil. You'll possibly find almost every color there from the rainbow. Sometimes you might feel that the soil was burnt or something like that, but its the natural clay having such color.















How to go & Where to stay:

Read the article about Birishiri Neel Pukur, at the bottom of the article you'll find about living and locating the place.

http://icwow.blogspot.com/2011/12/birishiri-china-clay-lake.html

Mymensingh: Shoshi Lodge(শশী লজ)


Friday, 16 December 2011

Statue of Greek goddess Venus


It was on our way to Birisiri. After refueling the car at Mymensingh(ময়মনসিংহ) town, we have decided to visit this Jomidar house(জমিদার বাড়ি) from the town. We have spent 20-30 minutes around the palace premise.



This palace was built by the King SurjoKanto(সুর্যকান্ত). He had an adopted son named ShoshiKanto(শশীকান্ত). The king named the palace according to his son's name. Shoshikanto(শশীকান্ত) was the last inherent of that ruler family.



The architecture of the palace is not that much byzantine in design. You'll find a statue of Greek goddess Venus in front of the palace that was built using marble stone. I have found this statue is the most interesting part of that premise.



As we hadn't that much time for exploring the place, we have missed the pond behind the palace and the great Naglinum tree(নাগলিঙ্গম গাছ). The fruit from that ancient tree was used to feed the elephants.



I have a plan to explore the Mymensingh district, and that time I'll explore this old mansion once again. Next time I'll spend more time there.

Statue of Greek goddess Venus


This Jamindar house(জমিদার বাড়ি) is located at the main town. You can easily go there using rickshaw or by walking. This old house is currently using as Women Teachers Training College. Friday/Saturday is the best time to visit as regular working is close on that day. GPS coordinate of this antique house is (24°45'43.63"N, 90°24'11.67"E). It is near the Boro bazar area. Better ask anyone for the location of Mohila TT college(মহিলা টিটি কলেজ).

Jhunjhuni Ful(ঝুনঝুনি ফুল) - Crotalaria


উজ্জল হলুদ রঙের ঝুনঝুনি ফুল দেখতে খারাপ না, তবে গন্ধটা খুব একটা সুবিধার না... ছোট বেলায় এই জংলি ফুলটা যতটানা আমাদের পছন্দের ছিল, তার থেকে বেশি পছন্দের ছিল এর পাকা ফল... খাওয়ার জন্য না, এর ফল পাকলে ভেতরের বীজগুলা শক্ত খোসার মধ্যে থাকে, বাদামের মতন, ঝাকি দিলেই ঝুনঝুন করে শব্দ হত... এই জন্য একে আমরা ঝুনঝুনি ফুল বলেই জানতাম... একটা ছড়ায় অনেকগুলা ঝুনঝুনি ফল থাকতো... তাই সামান্য ঝাকিতেই অনেক শব্দ হতো...

এখনো পাকে নাই... পাকলে এই ফলগুলা ঝাকি দিলেই ঝুনঝুন শব্দ হবে...


Our today's jungle flower is Jhunjhuni ful(ঝুনঝুনি ফুল). This plant belongs to the plant family Fabaceae. The genus Crotalaria of this plant family holds lot of almost similar such flowers. So it is hard for me to tell the exact botanical name of the flower. But possibly this can be Crotalaria mucronata. Common name of this flower is rattlepods.




Plants are woody shrub with erect growth. Leafs are tri-foliate and oval shaped. Flower occurs in inflorescence and color is yellow. Outer side of the petal of the flower has dark red stripes. Flower doesn't have any smell, but squeezing the petals will produce a bad pungent odor.



This plant produces lot of fruits as a bunch. When it is ripen, the shell of the fruit become too hard and the seeds remain inside that shell as free. So whenever it got any shake from the wind, it produces a lyrical sound. For this reason some people call this as Bell Flower.



In our country Bangladesh, this plant shows flower after starting the rainy season and continues till the winter. At the end of the winter, you'll find lot of ripen fruits as bunch that generates the sound.

Tri-foliate leaf.


Photos of this article were taken from Sylhet, during my tour at December 2011.

ফুলের জন্য ভালবাসা, আমি বুনো ফুল...